সৃজিত মুখার্জির পরিচালনায় নির্মিত ওয়েব সিরিজ “রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি” মুক্তি পাওয়ার আগেই দুই বাংলায় ব্যাপক আগ্রহ জাগিয়েছিল। আগ্রহের পেছনে কারণও ছিল বেশ কয়েকটি। প্রথমত বাংলাদেশী থ্রিলার লেখক  মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের

২০১৫ সালে বের হওয়া উপন্যাস “রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি” অবলম্বনে ওয়েব সিরিজটির চিত্রনাট্য ও ডায়লগ সাজিয়েছিলেন সৃজিত। ফলে সবাই অনেকটা ধরেই নিয়েছিলেন যে, এই দুই গুণী লেখক ও চিত্রনাট্যকারের মেধার সংমিশ্রণে খুব দারুণ কিছু হতে চলেছে। এছাড়াও এই ওয়েব সিরিজের কেন্দ্রীয় চরিত্র “মুশকান জুবেরী” হিসেবে অভিনয় করেছেন রেহানা মরিয়ম নূর (২০২১) চলচ্চিত্রের জন্য সদ্য কান চলচ্চিত্র উৎসবে দর্শকদের দাড়িয়ে অভ্যর্থনা পাওয়া অভিনেত্রী  আজমেরী হক বাঁধন। এছাড়াও অভিনয় করেছেন রাহুল বোস, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, অঞ্জন দত্ত এবং অনির্বাণ চক্রবর্তী। সব মিলিয়ে মুক্তির আগে বেশ আশা জাগিয়েছিল সৃজিতের “রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি”। কিন্তু এই অতিরিক্ত প্রত্যাশাই যেন তাদের জন্য কাল হলো।

আরো পড়ুন: হলি আর্টিসান: “শনিবার বিকেল”-এর মুক্তি থামানো গেলেও আইনী নোটিশ পাঠানোর পর কি হবে “ফারাজ” এর?
সাড়া ফেলতে ব্যর্থ সৃজিতের "রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি"। REKKA failed as web seriesঢাকার সুনামধন্য কলেজে পড়া দুই জমজ ভাই টুটুল ও তুষারের কাছে আমরা সিরিজটি কেমন লাগলো তা জানতে চাই।

টুটুল বই পড়া তেমন পছন্দ করে না। গেইম খেলে, মুভি-সিরিজ দেখেই অবসয় কাটায় সে। ফলে উপন্যাসটি তার পড়া হয়নি। সিরিজটি নিয়ে তার মতামত,

“বাংলায় এখন প্রচুর থ্রিলার মুভি-সিরিজ তৈরি হচ্ছে। ফলে দর্শকদের রুচীর ও উন্নতি হয়েছে। REKKA ওয়েব সিরিজটা ভালো ছিল। কিন্তু বর্তমানের দর্শকদের ‘ভালো’ দিয়ে খুশি করা প্রায় অসম্ভব। দরকার অনেক ভালো। সেখানে খুব একটা ভালো করতে পারেনি সৃজিত মুখার্জি। মেকিং খুব একটা ভালো বলা যায় না। বেশ কিছু ভুল ছিল। বেশ তাড়াহুড়ো করে শ্যুটিং করা হয়েছে বলে মনে হয়। মূল চরিত্রদের অভিনয় ঠিকঠাক হলেও কিছু পার্শ্ব চরিত্রের অভিনয় আবহ নষ্ট করেছে। বিশেষ করে বিদেশী শিল্পীদের অভিনয় মোটেও ভালো হয় নি। কয়েকটা এপিসোর্ড কিছুটা বোরিং ছিল, যেটা থ্রিলার সিরিজ থেকে আশাঁ করা যায় না। রাহুল বোস, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, অনির্বাণ চক্রবর্তী খুবই সাবলীল অভিনয় করেছেন। অঞ্জন দত্ত ছিলেন এক কথায় অসাধারণ। সিরিজে কাউকে সেরা অভিনেতা হিসেবে ঘোষণা করার দরকার পড়লে তিনিই তার দাবীদার। আজমেরী হক বাঁধন বেশ ভালো অভিনয় করলেও আমার মনে হয় এই চরিত্রের জন্য জয়া আহসান একদম পার্ফেক্ট ছিলেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা নিরুপম চন্দা পুরো সিরিজে কেন সি সি টিভি ক্যামেরা খেয়ালই করলেন না তা আমার বোধগম্য হয় নি। এই প্লটহোল কি উপন্যাসে ছিল না সৃজিত তৈরি করেছেন তা আমার জানা নেই। আর এত বেশী রবীন্দ্রসংগীত না দিলেও হতো। সব মিলিয়ে উপভোগ্য হলেও, এমন দারুণ রোমাঞ্চকর একটা গল্পে আরো ভালো পরিচালনার দাবী রাখে।”

সাড়া ফেলতে ব্যর্থ সৃজিতের "রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি"। REKKA failed as web seriesঅন্যদিকে তুষার বইটি আগেই পড়েছে। এবং তার ব্যাখায় বোঝা যায় সে খুব ভালো ভাবেই পড়েছে। তাকে ওয়েব সিরিজটি নিয়ে বেশ আশাহত দেখা যায়।

“‘নূরে ছফা’ চরিত্রটিকে ‘নিরুপম চন্দা’ বানানো আমি কিছুতেই মেনে নিতে পারি নি। নামটার মধ্যে সেই ভাব-গাম্ভীর্য্য নেই। আতর আলী চরিত্রে খুব ভালো অভিনয় করেছেন অনির্বাণ ভট্টাচার্য। রাহুল বোসও বেস সাবলীল ছিলেন। কিন্তু কিছু জায়গায় তার এক্সপ্রেসনের সাথে ডায়লগের মিল খুজে পাই নি। অনির্বাণের পাশে আকৃতিতে তাকে বেশ কদাকারদেহী লেগেছে। মুশকান জুবেরী চরিত্রে বেশ ভালো করেছেন বাঁধন। রবীন্দ্র সংগীতের ব্যবহার পুরো ওয়েব সিরিজ জুড়ে একটা আবহ সৃষ্টি করেছে। মুশকান জুবেরী-কে আরো রহস্যময় করে তুলেছে। কিন্তু তার অতিথিশালার পরিবেশ ফুটিয়ে তুলতে পারেননি সৃজিত, আর ৫ টা রেস্তরার মতোই মনে হয়েছে। মুশকান জুবেরী’র খাবারের অয়াসাধারণ স্বাদও ফুটিয়ে তুলতে পারেন নি সৃজিত। এপার বাংলার গল্পটা অনেকটা জোর করেই যেন ওপার বাংলায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। উপন্যাসের অনেক নান্দনিকতা তিনি বাদ দিয়েছেন। আবার বিদঘুটে কিছু জিনিস দেখানো হয়েছে যা না দেখিয়েও বোঝানো যায়।যদিও মিল খোজা উচিত নয়, তবুও কিছু বিষয় সৃজিত ইচ্ছা করলেই রাখতে পারতেন। উপন্যাস অবলম্বনে মুভি কিংবা সিরিজ নির্মানের কিছু দায় তো থেকেই যায়। “রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি”র মত উপন্যাস নিয়ে  আরো অনেক ভালো কাজ করা যেতো। সিরিজটি আমাকে আশাহত করেছে।”

সাড়া ফেলতে ব্যর্থ সৃজিতের "রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি"। REKKA failed as web series

আরো পড়ুন: ক্রিস্টোফার নোলান: সাইন্স ফ্রিকশনের রঙিন দুনিয়া দেখানো একজন বর্ণান্ধ।
আরো পড়ুন: “কুলি”র শ্যুটিং-এর দুর্ঘটনা। কেন ২রা আগস্ট অমিতাভ বচ্চনের ২য় জন্মদিন?

1 টি মন্তব্য

আপনার মন্তব্য জানাবেন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন