২০১৬ সালের জুলাই মাসের এক শনিবার বিকেলে ঢাকার হলি আর্টিসান ক্যাফেতে জঙ্গিরা হামলা চালায়। তারা ১৮ জন বিদেশী সহ ২২ জন জিম্মিকে হত্যা করে। পরবর্তিতে ২০১৯ সালে হলি আর্টিসান ট্রাজেডি নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র “শনিবার বিকেল

” সেন্সর বোর্ডে আটকে দেওয়া হয়। কারণ হিসেবে জানানো হয় “এটি দেশের সুনাম নষ্ট করবে”। ফিল্ম সেন্সর বোর্ডের এই সিদ্ধান্তে হতাশ হন চলচ্চিত্রটির পরিচালক, প্রযোজক এবং চলচ্চিত্রটি দেখার আশায় থাকা দর্শকবৃন্দ। চলচ্চিত্রটির পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকী সেন্সর বোর্ডের এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বলেন,”শৈল্পিক প্রকাশের জন্য(এই সিদ্ধান্ত) অস্বাস্থ্যকর”।

হলি আর্টিসান: "শনিবার বিকেল"-এর মুক্তি থামানো গেলেও কি হবে "ফারাজ" এর ভাগ্য?
মোস্তফা সরয়ার ফারুকী

সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান নিজামুল কবির বলেন,

“বোর্ড দেশে বা বিদেশে চলচ্চিত্র প্রদর্শনের অনুমতি দেয়নি, কারণ এটি অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিঘ্নিত করবে এবং দেশের বৈশ্বিক ভাবমূর্তি নষ্ট করবে।”

পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকী তার চলচ্চিত্র নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে আরো বলেন, “চলচ্চিত্র নির্মাতাদের তাদের চারপাশে ঘটে যাওয়া যেকোনো ঘটনা থেকে নির্দ্বিধায় অনুপ্রাণিত হওয়ার স্বাধীনতা পাওয়া উচিত”। ২০১৯ সালে সেন্সর বোর্ডের এই সিদ্ধান্ত দর্শকদের কাছেও ব্যাপক সমালোচিত হয়েছিল।

হলি আর্টিসান: "শনিবার বিকেল"-এর মুক্তি থামানো গেলেও কি হবে "ফারাজ" এর ভাগ্য?
হানসাল মেহতা

২০১৯ সালের সেই ঘটনাপ্রাবাহ দর্শকরা আলোচনার বাইরেই রেখেছিল বেশ কিছু দিন। কিন্তু গত বুধবার(৪ আগস্ট)-এর ঘটনায় নতুন আলোচনার জন্ম দিয়েছে।”স্ক্যাম ১৯৯২” খ্যাত ভারতীয় পরিচালক হানসাল মেহতা তার নতুন প্রজেক্টের নাম ঘোষনা করেছেন। হানসাল মেহতার পরবর্তী এই ছবির নাম “ফারাজ” এবং এটি ২০১৬ সালের বাংলাদেশ জঙ্গি সন্ত্রাসী হামলার উপর ভিত্তি করে নির্মান করা হচ্ছে।

আরো পড়ুন: বান্নাহ’র “Sweeper Man” কিংবা জাহিদ’এর “Kallu Sweeper”, ভিন্ন গল্পের দুই নাটক

ফারাজ” চলচ্চিত্রে প্রয়াত অভিনেতা শশী কাপুরের নাতি, জাহান কাপুরের প্রথবারের মত আত্মপ্রকাশ ঘটবে। এছাড়াও এই ছবিতে অভিনয় করবেন পরেশ রাওয়াল এবং স্বরূপ সম্পাতের ছেলে আদিত্য রাওয়াল, যিনি গত বছর ZEE5 এর চলচ্চিত্র “বামফাদ” দিয়ে অভিনয়ের জীবনের সূচনা করেছিলেন।
হানসাল মেহতা এবছর জুনে এই চলচ্চিত্রের শ্যুটিং শুরু করেছেন বলে জানা গিয়েছে।

আরো পড়ুন: ক্রিস্টোফার নোলান: সাইন্স ফ্রিকশনের রঙিন দুনিয়া দেখানো একজন বর্ণান্ধ।

বর্তমনে ফিল্ম সেন্সর বোর্ডের ২০১৯ সালের সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে আবার সমালোচনা শুরু হয়েছে। নেটিজেনরা বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে তাদের মতামত প্রকাশ করেছেন। অনেকের মনে এই সময়ে প্রশ্ন জাগছে যে, বাংলাদেশ এই চলচ্চিত্রের ব্যাপারে কোন পদক্ষেপ নিবে কিনা কিংবা কোন পদক্ষেপ নেওয়ার অধিকার আছে কিনা। দর্শকরা মনে করেন,”বিদেশী পরিচালকরা একই ঘটনা নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মান করতে পারলে,আমাদের দেশীয় পরিচালকের নির্মিত চলচ্চিত্রও প্রদর্শনের অনুমতি দেওয়া উচিত।

৯ আগস্ট ‘ফারাজ’ নামে বলিউডে সিনেমা নির্মাণ বন্ধের জন্য বাংলাদেশের ‘অবিন্তা কবির ফাউন্ডেশন’ এর পক্ষে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে ল ফার্ম ‘লিগ্যাল কাউন্সেল’।সোমবার  ‘লিগ্যাল কাউন্সেল’ এর পক্ষ থেকে সিনেমাটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টি-সিরিজ, পরিচালক হানসাল মেহেতা এবং অনুভব সিনহাকে নোটিশটি পাঠানো হয়েছে। আইনজীবী মিতি সানজানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই আইনি নোটিশ প্রেরণের বিষয়টি জানানো হয়।

এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিটিতে বলা হয়, “হলি আর্টিজানের হামলায় মিসেস রুবা আহমেদ তার একমাত্র সন্তান অবিন্তা কবিরকে হারিয়েছেন। ওই ঘটনা সকলের কাছে নির্মম হত্যাকাণ্ড হলেও রুবা আহমেদের কাছে এটি একটি নির্মম সত্য। তিনি চান না এই ঘটনা থেকে কোনো কন্টেন্ট নির্মাণ হোক। কারণ, এটি তাকে তার মেয়ের কষ্টদায়ক স্মৃতিকে বারবার জাগিয়ে তুলবে।”

আরো বলা হয়, “এটি বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করবে। তাছাড়া সিনেমা নির্মাণের আগে ভুক্তভোগী পরিবারের কাছ থেকেও কোনো ধরণের অনুমতি নেয়া হয়নি।”

হলি আর্টিসান: "শনিবার বিকেল"-এর মুক্তি থামানো গেলেও কি হবে "ফারাজ" এর ভাগ্য?
হলি আর্টিসান: “শনিবার বিকেল” “ফারাজ”

আরো পড়ুন: “কুলি”র শ্যুটিং-এর দুর্ঘটনা। কেন ২রা আগস্ট অমিতাভ বচ্চনের ২য় জন্মদিন?

আপনার মন্তব্য জানাবেন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন