Scarlett Johansson-এর পর এখন Emma Stone মকদ্দমা লড়তে চায় Disney-এর বিরুদ্ধে 2021। They are not happy

ডিসনি-র বিরুদ্ধে মামলা করার কথা ভাবছেন Emma stone.

প্রথম থেকে শুরু করলে Scarlett Johansson এবং ডিসনি-র চুক্তি অনুযায়ী Black Widow মুভিটি সম্পূর্ণভাবে থিয়েটার ভিত্তিক রিলিজ দেয়ার কথা ছিল। কিন্তু পরবর্তীতে Covid পরিস্থিতির কারণে মুভির মুক্তির তারিখ পিছিয়ে যায় ১৩ মাস এবং গত ৯ই জুলাই একই সাথে থিয়েটার এবং Disney Plus-এ মুক্তি পায় বহুল প্রতিক্ষিত মুভিটি (প্রথমে মুভিটি মুক্তির তারিখ ছিল পহেলা মে ২০২০)। কিন্তু Scarlett Johansson

(Black Widow মুভির মুল অভিনেত্রী) এর সাথে চুক্তিতে ডিসনি+ এ একই সাথে মুভি মুক্তির কথা ছিলনা। তাদের চুক্তি অনুযায়ী Scarlett Johansson-এর পারিশ্রমিক নির্ভর করে মুভির বক্স অফিস কালেকশনের উপর, আর Disney plus (যার প্রিমিয়াম ভার্শন মূল্য $২৯.৯৯ অথবা ৳২,৫২৭ প্রায়) তে মুভি মুক্তির জন্য এর বক্স অফিস কালেকশন কমে গিয়েছে বলে ধারণা করছেন অভিনেত্রী।

যদিও ডিসনি তার সাধারন পারিশ্রমিক হিসেবে ২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রদান করেছেন যা টাকার হিসেবে ১৬৮.৫ কোটি টাকা। কিন্তু তার মূল পারিশ্রমিক এর ঘাটতি থাকায় ডিসনি-এর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন অভিনেত্রী Scarlett Johansson.

একইভাবে Emma Stone তার অভিনিত Cruella মুভির জন্য মকদ্দমা লড়তে চায় বলে আশা ব্যাক্ত করেছেন যার দায়ভার বহন করতে হবে Disney কেই। Cruella মুক্তি পায় ২৮শে মে, ২০২১ তারিখে। ব্লাক উইডো মুভির মতো Emma Stone-এর Cruella ও শুধুমাত্র থিয়েটার ভিত্তিক রিলিজ দেয়ার কথা থাকলেও তা একই সাথে Disney plus-এ সেটি মুক্তি দিয়েছে ডিসনি।

Disney কম্পানির OTT প্লাটফর্ম Disney+ কে প্রমোট করার জন্য এমনটা করা হয়েছে বলে ধারণা অনেকেরই। এবং এর কারনে Emma Stone এবং Scarlett Johansson এর উভয় মুভি মুক্তির প্রথম দিন থেকেই পাইরেসি বা অনলাইন চুরির শিকার হয়েছে।

আপনার মন্তব্য জানাবেন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন