দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত সোশ্যাল মেসেঞ্জার অ্যাপগুলোর অদ্ভুদ সব ফিচার। Best Features of 8 Social Messenger Apps

সোশ্যাল মিডিয়া মেসেঞ্জার
প্রত্যেকটি মেসেঞ্জার অ্যাপ একেকটি থেকে ভিন্ন ফিচারযুক্ত

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে আমরা বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে থাকি। এর মধ্যে ভিডিও ও অডিও চ্যাট এবং টেক্সট মেসেজের জন্য আমরা বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া মেসেঞ্জার অ্যাপ ব্যবহার করি। এদের প্রত্যেকের মৌলিক কিছু ফিচার থাকে যা আমাদেরকে এগুলোর প্রতি আকর্ষন করে, ফলশ্রুতিতে আমরা অ্যাপগুলো ডাউনলোড করে থাকি। সকল অ্যাপের প্রাধান কাজ ভিডিও-অডিও চ্যাট ও টেক্সট মেসেজ করা। ভিডিও-অডিও চ্যাট ও টেক্সট মেসেজ এর ক্ষেত্রে প্রাইভেসি ও মেসেঞ্জার অ্যাপ এর ভিন্ন ভিন্ন ফিচার সম্পর্কে আজ আমরা জানবো।

 

Whatsapp:

whatsapp
Whatsapp contains end to end encryption in every message
  • whatsapp এর সম্পুর্ন মেসেজিং প্রক্রিয়া end to end encryption প্রাইভেসিতে হয়ে থাকে, ফলে প্রেরক ও প্রাপক ব্যতিত অন্য কারো কাছে সেগুলোর এক্সেস থাকে না।
  • টেক্সট ফরমেট পরিবর্তন করা যায়।
  • সাময়িক সময়ের জন্য মেসেজ পাঠানো যায়।
  • মেসেজ হাইলাইট করা যায়।
  • মেসেজ রিড করার সময় দেখা যায়।
  • পছন্দমত ব্যাকগ্রাউন্ড ব্যবহার করা যায়।

Messenger (Facebook):

messenger

সবচেয়ে জনপ্রিয় ফেসবুকের মেসেঞ্জার অ্যাপলিকেশনটির বেশ কিছু মৌলিক ফিচার আছে

  • মেসেঞ্জার অ্যাপ ব্যবহার করে বন্ধুদের সাথে গেম খেলা যায়।
  • ভিডিও কলের সময় emoji ও ফিল্টার ব্যবহার করা যায়। (snapchat এর মত)
  • বন্ধুদের nickname (ডাকনাম) পরিবর্তন এবং কনভার্সেশনের রং পরিবর্তন করা যায়।
  • ইনস্টল করা ছাড়াও বিভিন্ন অ্যাপ ও গেমস খেলা যায়।
  • Bot এর সাথে চ্যাট করা যায়।
  • মেসেজ রিকুয়েস্ট চালু করে রাখা যায় যার মাধ্যমে অপরিচিত কারো মেসেজ সরাসরি আপনার কাছে না এসে Hidden massage বা spam message এ জমা হবে।
  • QR code এর মাধ্যমে add to contact করা যায়।

Zoom:

zoom
Zoom became more popular during the lockdown of covid-19 pandamic

অনলাইন ক্লাস বা মিটিং এর জন্য জুম ব্যাপক জনপ্রিয় হলেও এটি বর্তমানে অনেক ক্ষেত্রে মেসেঞ্জার অ্যাপ হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এর মৌলিক ফিচার সমুহঃ

  • ভিডিও কলে কথা বলার ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করা যায়।
  • Beauty mode ব্যবহার করে ভিডিও কলে সৌন্দর্য্য বর্ধন করা যায়।
  • space বাটন ব্যবহার করে সহজে নিজের কথা mute করা যায়।
  • ভিডিও কনফারেন্স রেকর্ড করা যায়।
  • Gallery mode ব্যবহার করে একসাথে ৪৩টি window চালু রাখা যায়।
  • স্ক্রিনশেয়ারের মাধ্যমে নিজের স্ক্রিনের সব কিছু প্রদর্শন করা যায় এবং কন্ট্রোল এক্সেস দেওয়া যায়।

Telegram:

telegram

  • নতুন channel তৈরী করা যায় যার মাধ্যমে একসাথে আনলিমিটেড অডিয়েন্সের সাথে যুক্ত হয়ে ভিডিও স্ট্রিমিং ও নিউজ আদান প্রদান করা যায়।
  • অ্যাকাউন্ট ডিলিট না করেই সহজে ফোন নম্বর মাইগ্রেট করা যায়।
  • একাধিক Profile Picture আপলোড করা যায়।
  • end to end encryption এর জন্য secret chat ক্রিয়েট করা যায়।
  • সম্পুর্ণ theme customize করা যায়।
  • Auto night mode এনেবল করা যায়।
  • proxy server এর মাধ্যমে connect করা যায়।
  • মেসেজ schedule করা যায়।
  • আলাদাভাবে প্রাইভেসি নিয়ন্ত্রন করা যায়।
  • মেসেজ সেভ করে তা যে কারো কাছেই পাঠানো যায়।

Imo:

imo
imo is the most used audio-vedio calling application

imo অডিও ও ভিডিও কলের জন্য সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়।

  • আপনি কি টাইপ করছেন তা অপরজন লাইভ দেখতে পাবে।
  • যেকনো মোবাইল নম্বরে ফ্রি sms পাঠানো যায়।
  • অফলাইনে থাকলেও মেসেজ রিসিভ করা যায়।
  • ফেসবুকের মাধ্যমে সাইন ইন করা যায়।
  • contact নম্বরের কেউ যুক্ত হলে উভয়ের কাছেই notification যায়।

রেকর্ড হচ্ছে আপনার ডিভাইসের নিকটবর্তী সকল কথোপকথন ! কিন্তু কীভাবে ? 

Viber:

viber

  • smart notification অন করে রাখা যায়।
  • দ্রুততম সময়ে আরেকটি কনভার্সেশনে যাওয়া যায়।
  • Seen ও online status বন্ধ করে রাখা যায়।
  • Wifi sleep policy ব্যবহার করা যায়।

Bip:

bip messenger
bip came along with a new way to discover messenger
    • যেকোনো ভাষার মেসেজ রিসিভ করে auto translate করা যায়।
  • একসাথে ১০ জনের সাথে HD vedio call এ যুক্ত হওয়া যায়।
  • বিভিন্ন channel এ যুক্ত হয়ে কন্টেন্ট উপভোগ করা যায়।
  • টাকা ট্রান্সফার করা যায়।
  • Surprise point এ গিয়ে (সরাসরি) আকর্ষনীয় গিফট গ্রহন করা যায়।
  • এক অ্যাপে দুইটি ভিন্ন নম্বরের অ্যাকাউন্ট সংরক্ষণ করা যায় ও সহযে সুইচ করা যায়।

Google Duo:

Google duo
Google duo provides high Quality vedio calls
  • end to end encryption প্রাইভেসি দিয়ে থাকে।
  • সবচেয়ে high quality ভিডিও কল এর ব্যবস্থা রয়েছে।
  • কাউকে ভিডিও কল করলে সে আপনার কল রিসিভ করার আগেই আপনার ভিডিও দেখতে পারবে।
  • ফোনের স্ক্রিন শেয়ারের ব্যবস্থা রয়েছে।
  • contact pin করে রাখা যায়।

 

 

 

আপনার মন্তব্য জানাবেন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন