শরণার্থী অলিম্পিক দল 2020 অলিম্পিকে শরণার্থীদের প্রতিনিধিত্ব করবে। শরণার্থীদের বিশ্ব মঞ্চে তুলে ধরতে আবারও অলিম্পিকে শরণার্থী দল।

শরণার্থী অলিম্পিক দল

শরণার্থী অলিম্পিক দল হল বিভিন্ন দেশ থেকে পলায়ন করে আসা শরণার্থীদের নিয়ে গঠিত দল। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি ২০১৪ সালে প্রথমবারের মতো ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোতে শরণার্থী অলিম্পিক দল গঠন করে শরণার্থী সঙ্কটের বিশালতা সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানোর প্রয়াসে। আইওসি সভাপতি টমাস বাখ শরণার্থী অলিম্পিক দল গঠনের ঘোষণা দেন। ঘোষণার দশ মাস পর ১০ জন ক্রীড়াবিদ যারা মূলত ইথিওপিয়া, দক্ষিণ সুদান, সিরিয়া এবং কঙ্গো গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রের বাসিন্দা তারা শরণার্থী দল থেকে অলিম্পিকে অংশ নেয়।
শরণার্থী অলিম্পিক দল

২০২০-এ দ্বিতীয়বারের মতো অলিম্পিকে শরণার্থী অলিম্পিক দল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। তবে এইবারে গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক গেমসে টিমটি আকারে প্রায় তিনগুণ বেড়েছে। এই বছরে ১০ থেকে ২৯ জন সদস্য হয়েছে এবং ১৩ টি আয়োজক দেশগুলিতে বসবাস ও প্রশিক্ষণের জন্য ১১ টি দেশের ক্রীড়াবিদ রয়েছে যারা শরণার্থী দলের হয়ে অংশগ্রহন করবে। অলিম্পিক গেমসে অন্যান্য দলের মত তারা একটি দেশ বা এমনকি একটি ভাষা ভাগ করে না। পরিবর্তে, এই ২৯ জন ক্রীড়াবিদ বিশ্বব্যাপী ৮২ মিলিয়ন শরণার্থী এবং বাস্তুচ্যুত মানুষের পক্ষে প্রতিযোগিতা করছেন।

শরণার্থী অলিম্পিক দল
শরণার্থী অলিম্পিক দল

এটিই প্রথম বছর যে প্যারালিম্পিক গেমসে একটি শরণার্থী প্যারালিম্পিক দল রয়েছে। প্যারালিম্পিক গেমস হল প্রতিবন্ধী ক্রীড়াবিদদের জন্য আয়োজিত একটি আন্তর্জাতিক সিরিজ যা গ্রীষ্ম ও শীতকালীন অলিম্পিক গেমসের সাথে জড়িত এবং অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। শরণার্থী দল থেকে প্যারালিম্পিকে ৪ টি দেশ থেকে ৪ টি ক্যটাগরিতে অংশগ্রহন করেছে মোট ৬ জন। এরা হল ইব্রাহিম আল হুসেইন,আলিয়া ইসা,পারফাইত হাকিযিমানা,আব্বাস কারিমি,আনাস আল খালিফা ও শাহরাদ নাসাজপুর। এদের মধ্যে ইব্রাহিম আল হুসেইন এবং শাহরাদ নাসাজপুর ব্যতীত সকল ক্রীড়াবিদ প্যারালিম্পিকে নতুন। তারা দুজন ২০১৬ সালে প্যরালিম্পিক প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন।

শরণার্থী অলিম্পিক দল
প্যারালিম্পিক ক্রীড়াবিদ আব্বাস কারিমি

শরণার্থী অলিম্পিক দল থেকে ১১ টি দেশ থেকে অংশ নেওয়া ২৯ জন প্রতিযোগী হল;

আলা মাসো
জার্মানিতে বসবাসরত সিরিয়ার এই নাগরিক ৫০ মি ফ্রি স্টাইল সাঁতারে অংশগ্রহন করছে।

ইয়ুসরা মারদিনি
সিরিয়ার দামাস্কাতে জন্মগ্রহন করা এই যুবতী এইবারের শরণার্থী অলিম্পিক দলের পতাকা বাহক ছিলেন। জার্মানিতে বাস করা এই সাঁতারু অংশ নিবে ১০০ মি বাটারফ্লাই সাঁতারে।

শরণার্থী অলিম্পিক দল
ইয়ুস্রা মারদিনি

তাচলয়িনি গাব্রিয়েসস
ইরিত্রেয়ার এই নাগরিক ছিল শরণার্থী অলিম্পিক দলের আরেক পতাকা বাহক। তিনি অংশ নিবেন ম্যারাথনে।

দরিয়ান কেলেতেলা
পর্তুগালে বসবাসকারী কঙ্গোর এই খেলোয়াড় ১০০ মি দৌড়ে অংশ নিবে।

রোসে লেকনিয়েন
কেনিয়াতে বসবাসকারী দক্ষিন সুদানের এই খেলোয়াড় ৮০০ মি দৌড়ে অংশ নিবে।

জেমস চিয়েঞ্জিক
কেনিয়াতে বসবাসকারী দক্ষিন সুদানের এই নাগরিক ৮০০ মি দৌড়ে অংশ নিবে।

এঞ্জেলিনা লোহালিথ
কেনিয়াতে বসবাসকারী দক্ষিন সুদানের এই খেলোয়াড় অংশ নিবে ১৫০০ মি দৌড়ে।

পাওলো আমোটুন লোকোরো
কেনিয়াতে বসবাসকারী দক্ষিন সুদানের এই খেলোয়াড় ১৫০০ মি দৌড়ে অংশ নিবে।

জামাল আবদেলমাজি
ইসরাইলে বসবাসকারী সুদানের এই খেলোয়াড় ৫০০০ মি দৌড়ে অংশ নিবে।

আরাম মাহমুদ
নেদারলেন্দসে বসবাসকারী সিরিয়ার এই খেলোয়াড় অংশ নিবে একক পুরুষ ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায়।

ওয়েসাম সালামানা
জার্মানিতে বসবাসকারী সিরিয়ার এই খেলোয়াড় ৬৩ কেজির বক্সিং প্রতিযোগিতায় অংশ নিবে।

এলদ্রিক সেল্লা
ভেনেজুয়েলার এই খেলোয়াড় অংশ নিবে ৭৫ কেজি বক্সিং এ।

সাইদ ফাজলউলা
ইরানের এই নাগরিক ১০০০ মি কায়িকিং এ অংশ নিবে।

মাসোমাহ আলী জাদা
ফ্রান্সে বসবাসকারী আফগানিস্তানের এই খেলোয়াড় সাইক্লিং এ অংশ নিবে।

আহমদ ওয়াইস
সিরিয়ার এই খেলোয়াড়ও সাইক্লিং এ অংশ নিবে।

সাসান্দা আলদাস, আহমদ আলিকাজ, মুনা ডাহুক, জাভাদ মাহজুব, পপোল মিসেঙ্গা, নিগারা শাহীন
এরা সকলেই মিশ্র দল হিসেবে জুডোতে অংশগ্রহন করবে।

ওয়ায়েল শুয়েব
সিরিয়ার এই খেলোয়াড় কারাতেতে অংশ নিবে।

হামুন ডেরাফশিউর
ইরানের এই খেলোয়াড় কারাতেতে অংশ নিবে।

লুনা সলোমন
ইরেত্রিয়ার এই খেলোয়াড় অংশ নিবে ১০ মি এয়ার রাইফেল শুটিং এ।

দিনা পৌরয়ুনস
ইরানের এই খেলোয়াড় ৪৯ কেজির তায়েকন্ডোতে অংশ নিবে।

কিমিয়া আলিযাদে
জার্মানিতে বসবাসকারী ইরানের এই খেলোয়াড় অংশ নিবে ৫৭ কেজির তায়েকন্ডোতে।

আবদুল্লাহ সিদ্দিকী
বেলজিইয়ামে বসবাসকারী আফগানিস্তানের এই খেলোয়াড় ৬৮ কেজির তায়েকন্ডোয় অংশ নিবে।

সিরিল ফাগাত চাচেত
ইংল্যান্ডে বসবাসকারী ক্যমেরুনের এই খেলোয়াড় অংশ নিবে ৯৬ কেজির ভার উত্তোলন প্রতিযোগিতায়।

আকার আল-ওবায়দি
অস্ট্রিয়াতে বসবাসকারী ইরাকের এই খেলোয়াড় ৬৭ কেজির কুস্তিতে অংশ নিবে।

অলিম্পিক সংক্রান্ত আরও পড়ুনঃ
টোকিও অলিম্পিক মিস করবে যেসকল মহারথীদের
আর্চারির দ্বৈত ইভেন্টে বাদ পড়ল বাংলাদেশ। একক ইভেন্টে রয়েছে আশা।
অলিম্পিক স্বপ্নভঙ্গ জকোভিচের, সরে দাড়ালেন মিক্সড ডাবলস থেকেও।

আপনার মন্তব্য জানাবেন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন