অলিম্পিক স্বপ্নভঙ্গ জকোভিচের, সরে দাড়ালেন মিক্সড ডাবলস থেকেও।

টোকিও অলিম্পিকের তৃতীয় স্থান নির্ধারক ম্যাচেও হেরে গেলেন নোভাক জকোভিচ।

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অলিম্পিক স্বর্ণ অধরাই রয়ে গেল বর্তমান বিশ্বের সেরা টেনিস তারকার। বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকার ক্লান্ত-পরিশ্রান্ত অবস্থা দেখে হতাশ হয়েছেন টেনিস প্রেমীরাও। একই সঙ্গে মেজাজ হারিয়ে কোর্টে ব্যাট ছুঁড়েও সমালোচনার শিকার হলেন জকোভিচ। কাঁধে চোটের জেরে নিলেন বড় সিদ্ধান্ত।

প্রথম সেটে হার

টোকিও অলিম্পিকে টেনিসের সিঙ্গেলসের সেমিফাইনাল জার্মানির আলেকজান্ডার জেরেভের বিরুদ্ধে হেরে গিয়েছিলেন নোভাক জকোভিচ। শনিবার প্রতিযোগিতার তৃতীয় স্থান নির্ধারত ম্যাচেও সেভাবে দাগ কাটতে পারলেন না বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা। ম্যাচের প্রথম সেটেই হেরে যান এই সার্বিয়ার তারকা। ৬-৪ গেমে ওই সেট জেতেন স্পেনের পাবলো কারেনো বুস্তা।

দ্বিতীয় সেটে লড়ে জেতা

ম্যাচের দ্বিতীয় সেটেও পিছিয়ে পড়েছিলেন নোভাক জকোভিচ। নিজের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ফিরে আসেন তিনি। যদিও এই সেট থেকেই জকোভিচের শরীরে ক্লান্তি ধরা পড়তে শুরু করে। হয়তো গরমে কাহিল হয়েই নিজের স্বাভাবিক খেলা খেলতে পারছিলেন না সার্বিয়ার তারকা। টাইব্রেকারের মাধ্যমে ওই সেটের ফল নির্ধারণ হয়। জকোভিচের পক্ষে ম্যাচের ফলাফল হয় ৭-৬ (৮-৬)।

20210801 010825
ক্লান্ত পরিশ্রান্ত জকোভিচ।

সেমিফাইনালে হারার পর জকোভিচ জানিয়েছেন তিনি মানসিকভাবে খেলার অবস্থায় নেই।হারে তিনি হতাশ, সেটি তাঁর শরীরি ভাষাতেই প্রকাশ পেয়েছে। হারের পর তিনি বলেছেন, “এখন একটা ভয়ানক অবস্থার মধ্যে আছি।কোনোভাবেই আর নিজেকে ইতিবাচক রাখতে পারছি না।”

কাঁধের চোটের কথা বলে মিশ্র দ্বৈত থেকে সরে দাঁড়ান জকোভিচ। স্টোয়ানোভিচের সঙ্গে জুটি বেঁধে খেলার কথা ছিল তাঁর।

আপনার মন্তব্য জানাবেন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন