A1 Esports
A1 esports donated 44 thousand dollar to Unicef

পাব্জি মোবাইল ইতিহাসের অন্যতম সেরা প্রাইজপুলের মেগা ইভেন্ট PMWI শেষ হয়েছে। এতে বরাবরের মত বাংলাদেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ দল A1 Esports

আমন্ত্রন পেয়ে নিজেদের সর্বোচ্চ পারফর্মেন্স দেওয়ার চেষ্টা করেছে। মোট ২০ ম্যাচ খেলে একটি চিকেন ডিনার নিয়ে তারা টেবিলের ১১তম পজিশনে টুর্নামেন্ট শেষ করেছে।

দলটি টুর্নামেন্টের পুর্ব অঞ্চলে খেলেছিল যেখানে ১৩ কোটি ৪৩ লক্ষ টাকার বিশাল প্রাইজপুলের মধ্যে প্রায় ১২ কোটি ৭৩ লক্ষ টাকা বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থায় অনুদানে প্রদান করবে জয়ী দলরা। ১১ তম স্থানে টুর্নামেন্ট শেষ করে দলটি অনুদান করছে ৪৪ হাজার মার্কিন ডলার যা প্রায় ৩৭ লক্ষ ৩৩ হাজার বাংলাদেশি টাকার সমান।

A1 Esports তাদের এই অনুদানের সম্পুর্ণ অংশ UNICEF কে প্রদান করেছে।

UNICEF জাতিসংঘের শিশু তহবীল যা বিশ্বের ১৯২ টি দেশে শিশু এবং মা ও শিশুর সুরক্ষা নিয়ে কাজ করে থাকে। বর্তমানে UNICEF কভিড-১৯ টিকা প্রদান কার্যকমে বিশ্বব্যাপি অত্যান্ত গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা পালন করছে।

বিগত বছরে ১০ কোটি ২০ লক্ষ টাকার বিশাল অঙ্কের প্রাইজমানি নিয়ে শেষ হয় PMGC। তারই ধারাবাহিকতায় এই বছরেও শুরু হয়েছিল PUBG MOBILE WORLD INVITATIONAL(PMWI)। PMGC-র চেয়ে প্রায় ২.৫ গুন বেশি অর্থের প্রাইজমানি নিয়ে শুরু হয়েছে এই PMWI। এইবার খেলেনি কোন চাইনিজ টিম। এইবারের PMWI পূর্বাঞ্চল ও পশ্চিমাঞ্ছল এই দুই ভাগে আলাদাভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

PMWI মোট ৩,১৬০,০০০ ইউএস ডলার অর্থাৎ ২৬ কোটি ৮৬ লক্ষ টাকার প্রাইজমানি নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্পন্সর হিসেবে ছিল Gamers Without Borders। এই অর্থ বিলিয়ে দেয়া হয় বিশ্বের নামি দামি দাতব্য সংস্থা গুলোতে। টুর্নামেন্টে অংশগ্রহনকারি প্রতিটি দল পায় ৫ হাজার ডলার করে।

উভয় অঞ্চল থেকে অংশ নিবে ১৬ টি করে মোট ৩২ টি টিম। পুর্বাঞ্ছলে বাংলাদেশ ছাড়াও আরও ১৯ টি দেশের প্লেয়ার মিলিয়ে মোট ৭৭ জন প্লেয়ার খেলেছে। আর পশ্ছিমাঞ্ছলে ২৫ টি দেশের মোট ৮১ প্লেয়ার অংশগ্রহণ করেছে। করোনা পরিস্থতির কথা বিবেচনা করে এই টুর্নামেন্ট অনলাইন পদ্ধতিতে আয়োজন করা থাকলেও অনলাইনেই সম্পুর্ণ ইভেন্ট সম্পন্ন হয়েছে।

আমরা সকলে তাদের কে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানাই এবং তাদেরকে শুভকামনা জানাই।

আপনার মন্তব্য জানাবেন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন