মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সঙ্গে সঙ্গে আফগানিস্তানে তালিবানি দাপট বেড়েছে৷ ফলে গত দুমাসে লাগাতার তালিবান গোষ্ঠী ও আফগান সেনার লড়াই অব্যাহত রয়েছে৷ আফগানিস্তানের প্রায় অর্ধেক দখল করতে সক্ষম হয়েছে তালিবান গোষ্ঠী। গত ২০ বছর মার্কিন সেনা মোতায়নের ফলে অনেকটাই কোণঠাসা ছিল তালিবান জঙ্গিরা৷ তবে পরিস্থিতি পাল্টাতেই ময়দানে নেমে পড়েছে তারা৷ দখল নিতে শুরু করেছে একের পর এক প্রদেশ৷

 

20210726 180502
কারফিউ -র পাশাপাশি শক্ত অবস্থান নিয়েছে আফগানিস্তানের সেনারা।।

সরকারি বাহিনী তালিবানের অগ্রাভিযান থামাতে হিমশিম খাচ্ছে, ফলে আফগানিস্তানের কর্তৃপক্ষ, দেশের বেশিরভাগ এলাকায় রাত্রিকালিন কারফিউ জারি করেছে। আফগান স্বরাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ভয়েস অফ আমেরিকাকে জানান সকল প্রদেশে রাত ১০টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছেI কারফিউ’র আওতায় থাকবে না শুধুমাত্র কাবুল, নানগর্হার ও পাঞ্জশির প্রদেশI

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলিতে ইসলামী বিদ্রোহী গ্ৰুপটি দ্রুত যুদ্ধক্ষেত্রে সফল হয়ে, প্রায় ৩৪টি প্রদেশের রাজধানী ও দেশের রাজধানী কাবুলের কাছে এসে পৌঁছেছেI

আফগানিস্তানের এক মুখপাত্র আহমেদ জিয়া বলেন,”সন্ত্রাসী গ্ৰুপটি সাধারণত রাতের শেষ ভাগে সন্ত্রাসী ও নাশকতামূলক কর্মকান্ড চালায় , তাই সহিংসতা এড়াতে জনগণের রাত্রিকালীন চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপিত হচ্ছেI”

আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় এক টুইট বার্তায় জানায়  ২৬২ তালিবান জঙ্গিদের ২৪ ঘণ্টায় খতম করে আফগান সেনারা৷ তাছাড়াও ১৭৬ তালিবান জঙ্গি জখম এবং ২১টি আইডি বোমা নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে।

কান্দাহার দখল করতে উদ্যত তালিবানদের সঙ্গে চলেছে আফগান সেনার মুহুর্মুহ গুলির লড়াই৷ মার্কিন সেনার পক্ষ থেকেও বিমান হামলা করা হয়েছে৷ মে মাসের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্র ও জোটবাহিনী প্রত্যাহার শুরু করলে, তালিবান ব্যাপক আগ্রাসী অভিযান শুরু করেI সরকারি ভাবে ৩১ অগাস্ট শেষ হচ্ছে মার্কিন সেনাদের আফগানিস্তান অপরেশন৷

আপনার মন্তব্য জানাবেন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন