কাবুল বিমানবন্দরসহ বিভিন্ন অংশে গোলাগুলির খবর পাওয়া গেছে। গোলাগোলির ফলে কাবুল বিমান বন্দরের সকল বানিজ্যিক বিমান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। কিন্তু সামরিক বিমান চলবে বলে জানা গিয়েছে।

কাবুল বিমানবন্দরে হামলাউপকণ্ঠে সংঘর্ষে ৪০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছে। কাবুলের একটি হাসপাতাল টুইট করে এ তথ্য জানায়। তালেবান যোদ্ধারা কাবুলে ঢুকে পড়ার পর এ ঘটনা ঘটে। হাসপাতালে আসা লোকজনের বেশির ভাগই কারাবাগ এলাকায় সংঘর্ষে আহত। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায় কাবুলের বিভিন্ন অংশে গোলাগুলি হয়েছে।

কাবুল

বিবিসির খবরে বলা হয়,

“কাবুল বিমানবন্দরে গোলাগুলির পরপরই মার্কিন দূতাবাস নিরাপত্তা সতকর্তা জারি করে। দূতাবাস থেকে আফগানিস্তানে থাকা মার্কিন নাগরিকদের নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে। নিরাপত্তা সতকর্তায় বলা হয়, ‘কাবুলে নিরাপত্তা পরিস্থিতি দ্রুতই পাল্টে যাচ্ছে।’ যেসব মার্কিন নাগরিক কাবুল ছাড়তে চান তাদের অনলাইনে নিরন্ধন করতে বলা হয়েছে।”
আরো পড়ুন: আফগান প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ। তালেবানের কাছে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করার প্রস্তুতি।

আপনার মন্তব্য জানাবেন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন