বুধবার, মে ১৮, ২০২২

‘আল্লাহু আকবর’ ধ্বনিতে হিজাবের পক্ষে প্রতিবাদ মুসলিম ছাত্রীর। কর্ণাটকে হিজাব বিতর্কে তুমুল উত্তেজনা, ৩ দিন…..

একদিকে একদল গেরুয়া উত্তরীয় পরা ছাত্র, আরেক দিকে একা হিজাব পরা একটি মেয়ে। গেরুয়া স্কার্ফ পরা দলটি তীব্র চিৎকার করছে- জয় শ্রীরাম। হিজাব পরা ছাত্রীটির পালটা গর্জন – ‘আল্লাহু আকবর’, ‘আল্লাহু আকবর’। মঙ্গলবার কর্ণাটকের একটি কলেজের এমন দৃশ্যের ভিডিও ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বছরের পর বছর ধরে ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকে কট্টর হিন্দু জাতীয়তাবাদী কর্মকাণ্ড বৃদ্ধি ও রাজ্যের ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের—প্রধানত মুসলিমদের লক্ষ্যবস্তু হতে দেখা গেছে।গত মাসে কর্ণাটকের বিধানসভায় একটি আইন পাস হয়েছে। এই আইনের মাধ্যমে রাজ্যে ধর্মান্তর পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

মুসলিম ছাত্রীদের হিজাব পরা নিয়ে তীব্র উত্তেজনার জেরে কর্ণাটকের সব স্কুল এবং কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বাসাভরাজ এস বোম্মাই আগামী তিনদিনের জন্য সব স্কুল-কলেজ বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন।

20220208 200135 copy 800x500
হিজাব পরে মুসলিম ছাত্রীদের প্রতিবাদ।

ডিসেম্বর মাস থেকে বিজেপি শাসিত কর্ণাটকের কলেজে মুসলিম ছাত্রীদের হিজাবে পরে নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। গত কয়েক দিনে তা চরমে পৌঁছেছে। হাই কোর্টে উঠেছে মামলা। এদিন সকালেও উডুপির মহাত্মা গান্ধী কলেজে মুখোমুখি হয় উভয়পক্ষ- হিজাব পরিহিত ছাত্রীরা ও গেরুয়া উত্তরীয় জড়ানো পড়ুয়াদের দল। এরই মধ্যেই প্রকাশ্যে এসেছে একা একটি মুসলিম মেয়ের পালটা সুর চড়ানোর ভিডিও।

ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, বোরখা পরা এক কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী একটি স্কুটিতে কলেজ চত্বরে প্রবেশ করেন। যেখানে আগে থেকেই উপস্থিত ছিল গলায় গেরুয়া উত্তরীয় পরা একদল ছাত্র। ছাত্রীটি গাড়ি পার্ক করে ক্লাসের দিকে এগোতেই তাঁকে অনুসরণ করে জয় শ্রীরাম ধ্বনি দিতে থাকে তারা। মেয়েটির খুব কাছে এসে ক্রমাগত স্লোগান দিতে থাকে ছাত্রদের দলটি। একটা সময় ঘুরে দাঁড়ায় ওই ছাত্রী। চোয়াল শক্ত করে পালটা স্লোগান দিতে শুরু করে সে। একাধিকবার হাত তুলে ‘আল্লাহু আকবর’ বলে চিৎকার করতে দেখা যায় তাকে। ভিডিওর শেষে ক্যামেরার সামনে এসেও স্থানীয় ভাষায় চিৎকার করে প্রতিবাদ জানায় মেয়েটি। এর মধ্যে কলেজ কর্তৃপক্ষও এসে পড়ে ঘটনাস্থলে। তারা গেরুয়া পরা ছাত্রদের থেকে সরিয়ে কলেজের ভেতরে নিয়ে যায় ছাত্রীকে।

পরে একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে ওই কলেজ পড়ুয়া জানায়, “আমি কলেজে আসছিলাম। একদল ছাত্র আমাকে কলেজে ঢুকতে দিচ্ছিল না। ওরা বলে, বোরখা পরা থাকলে কলেজে ঢুকতে দেবে না।”

এদিকে বোরখা পরা ওই কলেজ ছাত্রীর ভাইরাল ভিডিও নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে শেয়ার করে বিতর্ক বাড়িয়েছেন বলি অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর। তিনি ছাত্রদের দলটিকে ‘নেকড়ে’ বলে উল্লেখ করেন নিজের পোস্টে।

এদিকে আজই কর্ণাটকের কলেজের আরও একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। যেখানে দেখা গিয়েছে, একদল ছাত্র কলেজ চত্বরে একটি গেরুয়া পতাকা টাঙানোর চেষ্টা করছেন। অভিযোগ, ওই ছাত্ররা জাতীয় পতাকা নামিয়ে গেরুয়া পতাকা টাঙায়।

মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্বাই এদিন রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, ”আমরা কর্নাটক হাইকোর্টের নির্দেশের জন্য অপেক্ষা করছি। আমি শিক্ষার্থীদের কাছে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখার আহ্বান জানাচ্ছি। আমি স্কুল প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছি, যাতে ছাত্রদের সঙ্গে কোন সংঘর্ষ না হয়। উস্কানিমূলক বিবৃতি না দেওয়ার জন্য বাইরে থেকে সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে আবেদন করছি।”

রাজ্যের উদুপি জেলার একটি প্রাক-বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচ ছাত্রী হিজাব পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা নিয়ে প্রশ্ন তুলে আদালতে পিটিশন দায়ের করেছে। মঙ্গলবার সেই বিষয়ে কর্ণাটকের হাইকোর্টে শুনানি শুরু হয়েছে।

হিজাব পরা নিয়ে রাজ্যের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে মুসলিম ও হিন্দু ছাত্র-ছাত্রীরা মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে।উত্তেজনাকর এই পরিস্থিতিতে আদালতের শুনানি আগামীকালও অনুষ্ঠিত হবে। রাজ্যের শিক্ষার্থী এবং জনগণকে শান্তি বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন কর্ণাটকের আদালত।

 

Similar Articles

Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Advertismentspot_img

Instagram

Most Popular